সিলেট সিটি নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থী- বেকায়দায় জামায়াত

সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বিএনপির ‘বিদ্রোহী’ প্রার্থী বদরুজ্জামান সেলিম অবশেষে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন। আজ বৃহস্পতিবার বিকাল ৩টার দিকে তিনি নির্বাচন থেকে সরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত আনুষ্ঠানিকভাবে জানান।

এর আগে, বুধবার দিনগত রাতে সেলিমের বাসায় গিয়েছিলেন বিএনপির একটি কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল। প্রতিনিধি দলটি আজ বৃহস্পতিবার বিকালে আবার সেলিমের বাসায় যাওয়ার কথা রয়েছে।

বুধবার রাতে সেলিমের হাজারীবাগস্থ বাসায় যান দলের চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা আমানউল্লাহ আমান এবং কেন্দ্রীয় সদস্য নাজিম উদ্দিন আলম। তারা সেলিমের মায়ের সাথে কুশল বিনিময় করেন এবং বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন। আলোচনার একপর্যায়ে নির্বাচন নিয়ে কথা উঠলে সেলিমকে নির্বাচন থেকে সরে যাওয়ার জন্য অনুরোধ করেন কেন্দ্রীয় নেতারা। তারা বলেন- ‘তুমি দলের লোক, তোমাকে দলে ফিরিয়ে আনতেই আমরা এসেছি।’

এসময় বিএনপির প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরীও সেলিমের বাসায় উপস্থিত হন। তখন তিনিও বদরুজ্জামান সেলিমকে নির্বাচন থেকে সরে যাওয়ার ব্যাপারে অনুরোধ করেন। কিন্তু, সেলিম নির্বাচনের ব্যাপারে তাদেরকে কোন সিদ্ধান্ত জানাননি। পরে একসাথে সেলিমের বাসায় রাতের খাবার খেয়ে ১২টার দিকে বেরিয়ে আসেন আরিফসহ বিএনপি নেতারা।

এ ব্যাপারে বদরুজ্জামান সেলিম বলেন, আমানউল্লাহ আমান এবং নাজিম উদ্দিন আলমের সাথে আমার দীর্ঘদিনের সম্পর্ক। রাজনৈতিক সম্পর্কের পাশাপাশি তাদের সাথে আমার পারিবারিক সম্পর্ক তৈরি হয়েছে। আজ তারা সিলেটে এসেছেন তাই রাতের খাবার খেতে আমার বাসায় আসেন। এসময় আরিফুল হক চৌধুরীও উপস্থিত হন। আলাপকালে তারা আমাকে নির্বাচন থেকে সরে যাওয়ার জন্য অনুরোধ করেন। কিন্তু আমি সেটি করতে পারব না বলে তাদের জানিয়ে দিয়েছি। আমি নির্বাচন করছি, এটাই ফাইনাল।

কিন্তু সেলিমের রাতের মন্তব্য সকালে পাল্টে গেছে। দলের নির্ভরযোগ্যসূত্র নিশ্চিত করেছে বিএনপি’র কেন্দ্রীয় নেতারা আজ বৃহস্পতিবার বিকালে আবারও সেলিমের বাসায় যাচ্ছেন। আর তাদের সামনেই আনুষ্ঠানিকভাবে সেলিম নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেবেন।

এর আগে বদরুজ্জামান সেলিম আরিফের ব্যাপারে বিভিন্নরকম অভিযোগ তুলেন। আরিফুল হক চৌধুরীকে দলের জন্য ক্ষতিকারক, দলের সুবিধাভোগী হিসেবেও উল্লেখ করেন। আরিফকে দেয়া দলের মনোনয়ন মেনে নিতে পারেননি বদরুজ্জামান সেলিম। তাই নাগরিক কমিটির ব্যানারে মেয়রপদে প্রার্থী হন তিনি।

বিডি-প্রতিদি

Loading...

About চিফ ইডিটর

View all posts by চিফ ইডিটর →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.