সদরঘাট থেকে হাইকোর্টে রায়ের কপি যেতে কত সময় লাগে : জাফরুল্লাহ

দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার পাঁচ বছরের সাজার রায়ের কপি এখনও হাইকোর্টে না পৌঁছানোর কঠোর সমালোচনা করেছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও বিএনপিপন্থি পেশাজীবী নেতা ড. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

তিনি বলেছেন, ‘সদরঘাট থেকে ঢাকা হাইকোর্ট যাতায়াতে ডিজিটাল যুগে কয় ঘণ্টা সময় লাগে তা আমাদের জানা। বিচারিক আদালত থেকে বেগম জিয়ার রায়ের কপি হাইকোর্টে পৌঁছুতে কোনোভাবেই এত সময় লাগার কথা নয়! এটা অনেকটা ইচ্ছাকৃত বিলম্ব।’

শনিবার (৩ মার্চ) জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে ঐতিহাসিক ৩ মার্চ স্বাধীনতার ইশতেহার পাঠ দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানটি আয়োজন করে ঐতিহাসিক ৩ মার্চ ’৭১ উদযাপন কমিটি।

দেশে যখন গণতন্ত্র থাকে না তখন চতুর্দিকে নৈরাজ্য চলে ব‌লে মন্তব্য ক‌রে‌ন ড. জাফরুল্লাহ।

তিনি বলেন, ‘চার কিলোমিটার রাস্তা যেতে ১৫ দিন সময় লাগে! খালেদা জিয়া আড়াই কোটি টাকা চুরি করেছেন বলা হয়, কিন্তু তিনি এত কম টাকা কেন চুরি করেছেন তা আমি জানি না। আরও বেশি করে করতে পারতেন।’

রাজনৈতিক এই বিশ্লেষক আরও বলেন, ‘কোনও জাতি এক ব্যক্তির দ্বারা গঠিত হয় না। একজনের একদিনের বক্তৃতা ও ঘোষণা দ্বারাও নয়। বহুজনের শ্রমের দ্বারা জাতি গঠিত হয়।’

২ ও ৩ মার্চ রাষ্ট্রীয়ভাবে উদযাপন না করার সমালোচনা করে তিনি বলেন, ‘যে জাতি বীরদের সম্মান করতে পারে না সেই জাতির কপালে দুর্ভোগ আছে। আজকে রাষ্ট্রীয়ভাবে ২ ও ৩ মার্চ উদযাপিত হয় না কেন? মানুষতো জানে যারা বর্তমানে রাষ্ট্র পরিচালনা করছে তারা বেঈমানি করছেন।’

ড. জাফরুল্লাহ আরও বলেন, ‘আজ যেটা বলা সহজ সেই কথাটা ১৯৭১ সালের মার্চ মাসে বলা সহজ ছিল না। তখন জীবনকে বাজি রাখতে হতো। জাতি যখন দিকভ্রান্ত হতাশ তখন ২৩-২৪ বছরের যুবক এক ঐতিহাসিক ঘটনা ঘটিয়ে দেন। হঠাৎ সাহসের সঙ্গে পতাকাটা তুলে ধরলেন। পরদিন একটা দিক নির্দেশনা দিলেন শাহজাহান সিরাজ। রব শুরু করলেন, এটাই আমাদের পতাকা। আমরা চিন্তা করতে বাধ্য হলাম আমাদেরকে এই পথে এগুতে হবে। তার পরদিন বিস্তারিত তুলে ধরলেন শাহজাহান সিরাজ। একটা পড়া দরকার। আমি স্কুলের বই খুলে দেখি কোথাও রবের নাম নেই, শাহজাহান সিরাজের নাম নেই। কেন? ইশতেহার শব্দটাও তো নেই।’

যখন এক ব্যক্তির হাতে ক্ষমতা থাকে তখন ঢাকাকেন্দ্রিক শাসন ও ইসলামাবাদের শাসনের মধ্যে তেমন তফাত থাকে না বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

শাজাহান সিরাজ ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের সচিব ব্যারিস্টার শুল্কা সারওয়াত সিরাজের সঞ্চালনায় সভায় আরও বক্তব্য দেন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জেএসডি) সভাপতি আ স ম আব্দুর রব, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়েল ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক ড. সৈয়দ আনোয়ার হোসেন, কবি আল মুজাহিদী, বেগম রাবেয়া সিরাজ ও বাংলাদেশ ছিন্নমূল হকার্স সমিতির আহ্বায়ক কামাল সিদ্দিকী প্রমুখ।

উল্লেখ্য, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় গত ৮ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর বকশীবাজারের আলিয়া মাদরাসা মাঠে স্থাপিত ঢাকার ৫ নং বিশেষ জজ ড. আখতারুজ্জামান এ মামলায় খালেদা জিয়াকে ৫ বছরের কারাদণ্ড দিয়ে রায় ঘোষণা করেন। রায়ে তারেক রহমানসহ বাকিদের ১০ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। রায় ঘোষণার পর ওই দিনই কড়া নিরাপত্তায় খালেদা জিয়াকে ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে নেয়া হয়। বর্তমানে তিনি সেখানেই বন্দি আছেন।

এ মামলায় গত ২২ ফেব্রুয়ারি দ্বিতীয় দিনের শুনানি শেষে বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি সহিদুল করিমের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এক আদেশে জানান, বিচারিক আদালতের নথি পেলেই খালেদা জিয়ার মামলার আদেশ দেয়া হবে।

‌ব্রে‌কিং‌নিউজ

Loading...

About চিফ ইডিটর

View all posts by চিফ ইডিটর →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.